loader image

ঘুমের সমস্যা? কিছুতেই সলভ হচ্ছে নাহ? আজকে হবে!

আপনি কি জানেন?
আপনার ঘুমের সমস্যা রিসাইক্লিং এর মাধ্যমে সলভ করে ফেলা সম্ভব?

অবাক হচ্ছেন, রিসাইক্লিং আবার কি জিনিস? দারান বুঝিয়ে বলি…

মনে করেন, আপনার ফোনের ব্যাটারি টির চার্জ এখন ৫০ পার্সেন্ট আছে, হ্যা । এখন আপনাকে যেটা করতে হবে, ফোনের চার্জ টিকে ০% এ নিয়ে আসতে হবে । হয়ে গেলো শাটডাউন, তাইনা? এবার সেই ০% হতে ১০০% পর্যন্ত চার্জ করাকেই রিসাইক্লিং বলে..

এককথায়, রিসাইক্লিং হলো একটি জিনিসকে পুরোপুরি স্টপ করে, নতুন করে আবার প্রথম হতে শুরু করা ।

তো রিসাইক্লিং এর মাধ্যমে কি সত্যিই ঘুমের প্রবলেম সলভ করা সম্ভব?

# উওর হলো হ্যা, আপনার যদি রাতে গভীর ঘুম না আসে, ভুল টাইমে বারবার ঘুম আসে, এটা আপনি রিসাইক্লিং এর মাধ্যমে সলভ করতে পারবেন । এর জন্য আপনাকে যেটা করতে হবে…

## একদিন পুরা রাত ঘুমাবেন নাহ, একটুও না । তো স্বাভাবিক ভাবেই দিনের বেলা আপনি ঝিমাবেন, না তাও ঘুমানো যাবেনা । এবার রাতে একটা পারফেক্ট টাইমে ( ৯-১০) এর মধ্যে ঘুমাতে যান । আপনার শরীর, চোখ ক্লান্ত থাকার কারনে আপনার সহজেই তখন ঘুম এসে যাবে । এবার ৫-৬ টার মধ্যে উঠে পড়ুন, এর বেশি নাহ কিন্তু ।

তো এতে আপনি একটা ভালো ঘুম পেয়ে যাবেন । সো পরের দিন ও আপনার সেই একই কাজ করুন । সেই একই টাইমে ঘুমাতে যান, একই টাইমে উঠুন ‌। এভাবে অল্প কিছুদিন চলার পর লক্ষ করবেন, ইউর এভরি নাইট ইস ফুলি উইথ ডিপ স্লিপ

# তেমনি ভাবে আপনার ফোনের ব্যাটারি কেও পাওয়ারফুল করতে পারবেন । এর জন্য উপরের উদাহরণের কাজ টি প্রতি তিনমাস অন্তর করুন । ইউর ফোন ওইল হ্যাভ এ গ্রেট ব্যাটারি ব্যাকাপ

About the author

Tahsan Sumon

Tech Enthusiast, Researcher, WP Developer, Passion Singer, Writer .... Anything more? Damn, that's a random story.

Add comment

Categories